ই-কমার্স ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনার জন্য কিছু টিপস

অনলাইন শপিং সাইট গুলোর জন্য সবচেয়ে বড় সমস্যা হল ভিজিটর আনা নিশ্চিত করা। আপনি অনেক টাকা ব্যয় করে অনেক প্রোডাক্টের ছবি দিয়ে একটা শপিং ওয়েবসাইট করলেন কিন্তু তারপর দেখলেন যে তেমন ভিজিটর আসছে না। লোক না আসলে বিক্রি করবেন কার কাছে? আবার শুধু লোক আসলেই হবে না, আপনি যেসব পন্য বিক্রি করছেন সেগুলোর খোঁজে বা সে গুলো কিনতে চায় এমন ধরনের লোকের আসা নিশ্চিত করাও দরকার। শুধু তাই নয় আপনি বাংলাদেশের ক্রেতাদের জন্য ওয়েবসাইট চালু করেছেন কিন্তু আপনার ভিজিটরদের ৫০% বা তারও বেশি আসছে বিদেশ থেকে। এসব নিয়েই আমি কয়েক পর্বের লেখা শুরু করলাম এই পোস্ট দিয়ে।

পেশাদার ব্লগার ছিলাম এক সময় এবং আমার ব্লগ গুলো প্রায় দেড় কোটির মত পেইজভিউ পেয়েছিল ৫ বছরে। এজন্য আমাকে একটি টাকাও খরচ করতে হয়নি বিজ্ঞাপনের পেছনে। তবে ব্লগের হিট আর অনলাইন শপিং সাইটের জন্য ভিজিটর আনার মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। তাই আমার লেখায় কোন ভুল বা সমস্যা পেলে বা কোন রকমের দ্বিমত পোষণ করলে কমেন্ট সেকশনে বিনীত ভাবে ধরিয়ে দেবার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা, ইন্টারনেটে লেখাপড়া (যে গুলোর লিংক প্রতি পর্বের শেষে দেয়া হবে) এবং বাংলাদেশে ই-কমার্স নিয়ে অনেকের সঙ্গে কথা বলার ভিত্তিতে আমি এই পোস্ট গুলো লিখছি। আর এই পোস্টটি আসলে অনেকটা ইন্ট্রোডাকশন বা ভুমিকার মত। এখানে যেসব বিষয় সংক্ষেপে তুলে ধরছি সেগুলোর প্রতিটি নিয়েই পরবর্তীতে বিস্তারিত পোস্ট দেবার আশা করি।

১। Content is King বা কন্টেন্টই রাজাঃ ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশান অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নেবার পর থেকে বাংলাদেশের শপিং সাইটগুলোর সিংহ ভাগই আমি ভিজিট করে দেখেছি। সবচেয়ে বড় সমস্যা হল কন্টেন্ট তেমন থাকেনা, বিশেষ করে টেক্সট কন্টেন্ট। বড় জোর সুন্দর ছবি। কিন্তু একটু চিন্তা করে দেখেন আমরা কি গুগলে টেক্সট দিয়ে সার্চ দেই না ইমেজ দিয়ে। প্রোডাক্টের বর্ণনা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কিন্তু এটি নিয়েও অনেকে অবহেলা করেন। গুগলে সার্চ করে আসা ভিজিটরের কথা বাদই দেন, ফেইসবুকের বিজ্ঞাপন দেখেও যিনি এসেছেন, বা আপনার আত্মীয় বন্ধু যিনি আপনার কার্ড দেখে বা ইমেইল পেয়ে আপনার ওয়েবসাইটে এসেছেন কিছু কিনতে তিনিও কিন্তু প্রোডাক্ট এর সুন্দর ও তথ্যবহুল বর্ণনা আশা করেন।

বিস্তারিত পড়তে ক্লিক করুনঃ